ঢাকা মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১৮, ২০১৮



‘৩১ ডিসেম্বরের পর অ্যাকর্ড ও অ্যালায়েন্সকে নজরদারিতে আর রাখা হবে না’- বানিজ্যমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট: আগামী ৩১ ডিসেম্বরের পর দেশে পোশাক খাতের কারখানাগুলোয় নজরদারিতে ইউরোপ-আমেরিকার ক্রেতা জোট অ্যাকর্ড ও অ্যালায়েন্সকে আর রাখা হবে না বলে জানিয়েছেন বানিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ। তিনি বলেন, মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও তাদের ৬ মাস বেশি সময় দেয়া হয়েছে। ডিসেম্বরের পর কল-কারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদফতরের (ডিআইএফই) রেমিডিয়েশন কো-অর্ডিনেশন সেল (আরসিসি) নিরাপত্তাসহ সবধরনের বিষয়ে মনিটরিং করবে।

রোববার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এবং রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো আয়োজিত জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ২০১৪-২০১৫ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। ফাইল ফটো

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী আরও বলেন, দেশের ব্যবসায়ীদের স্বার্থে নতুন আমদানি-রফতানি নীতি সুরক্ষিত থাকবে বলে নিশ্চিত করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম চৌধুরী, বাণিজ্য সচিব সুভাশীষ বসু, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দীন, রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান বিজয় ভট্টাচার্য প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অসামান্য অবদানের জন্য রপ্তানি বাণিজ্য উন্নয়নে মূখ্য ভূমিকা পালনকারী ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাসমুহকে প্রতিবছর জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ও সনদপত্র প্রদান করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ২০১৪-২০১৫ অর্থ বছরে রপ্তানি ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ২৯টি পণ্য ও ২৯টি সেবার ৩২টি খাতের রপ্তানি কারক প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় রপ্তানি ট্রফি প্রদান করা হয়। এ বছর সর্বমোট ২৯টি স্বর্ণ, ২০ রৌপ্য এবং ১৪টি ব্রোঞ্চ পদক প্রদান করা হয়। এবার মোট ৬৩টি রপ্তানি কারক প্রতিষ্ঠানকে জাতীয় রপ্তানি ট্রফি ও সনদ প্রদান করা হয়েছে।

কৃতজ্ঞতা-আমাদের সময়

Write a comment

Print Friendly, PDF & Email

এই বিভাগের আরও খবর


আর্কাইভ



error: Content is protected !!