ঢাকা শনিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৮



ওয়ালটনের টিভি বিক্রি বেড়েছে দ্বিগুণেরও বেশি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ফুটবল বিশ্বকাপ ঘিরে ওয়ালটনের টেলিভিশন বিক্রি বেড়েছে দ্বিগুণেরও বেশি। ওয়ালটন গত বছরের জুন মাসে যে পরিমান টেলিভিশন বিক্রি করেছিল, তার চেয়ে দ্বিগুণের বেশি টিভি বিক্রি হয়েছে চলতি বছরের একই সময়ে। সারা দেশে ব্যাপক বিক্রি হচ্ছে ওয়ালটনের স্মার্ট টিভি। টেলিভিশনের বাড়তি চাহিদার যোগান দিতে কারখানায় উৎপাদন বাড়িয়েছে দেশীয় প্রতিষ্ঠানটি।

সূত্রমতে, দেশেই অত্যাধুনিক প্রযুক্তির আন্তর্জাতিকমানের টেলিভিশন উৎপাদন করছে ওয়ালটন। সাশ্রয়ী মূল্যে উচ্চমানের এলইডি এবং স্মার্ট টিভি বিক্রি করায় ওয়ালটন টিভির চাহিদা বেড়েছে ব্যাপক। ফুটবল বিশ্বকাপে বন্ধু-বান্ধব কিম্বা পরিবার পরিজনসহ মাঠের আনন্দ উপেভোগ করতে বেশিরভাগ গ্রাহকই বেঁছে নিচ্ছেন ওয়ালটন ব্র্যান্ডের টিভি।

জানা গেছে, বিশ্বকাপ এবং দুই ঈদ উপলক্ষে টেলিভিশনের বাড়তি চাহিদার যোগান দিতে কারখানায় টিভি উৎপাদন বাড়িয়েছে ওয়ালটন। এদিকে উৎপাদন বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে কমেছে টিভির উৎপাদন ব্যয়। যার প্রেক্ষিতে ফুটবল বিশ্বকাপ চলাকালে টিভির দাম আরেক দফা কমিয়েছে দেশীয় ব্র্যান্ডটি।

বিক্রেতারা জানান, ওয়ালটন টিভিতে রয়েছে ৬ মাসের রিপ্লেসমেন্ট ওয়ারেন্টিসহ এলইডি প্যানেল ও খুচরা যন্ত্রাংশে দুই বছরের ওয়ারেন্টি ও পাঁচ বছরের ফ্রি বিক্রয়োত্তর সুবিধা। আরো রয়েছে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্টের আওতায় দেশব্যাপী বিস্তৃত সার্ভিস পয়েন্ট থেকে দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবার নিশ্চয়তা।

এদিকে ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় ফুটবল বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে ওয়ালটন টিভি কিনে রেজিস্ট্রেশন করলেই ক্রেতারা পাচ্ছেন নতুন গাড়ি, ফ্রিজ, টিভি ও এসি সম্পূর্ণ ফ্রি কিম্বা নিশ্চিত ক্যাশব্যাক।

ওয়ালটনের ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর উদয় হাকিম বলেন, বাংলাদেশে তৈরি টেলিভিশন বাজারে আধিপত্য বিস্তার করে আছে। আমদানি করা টিভি দেশীয় ব্র্যান্ডগুলোর সঙ্গে মোটেও কুলিয়ে উঠতে পারছে না। দেশে তৈরি টিভি উচ্চমানের হওয়ায় ক্রেতারাও তা সাদরে গ্রহণ করেছেন। ফলে টেলিভিশনের মতো প্রযুক্তিপণ্যে বাংলাদেশ বলা চলে স্বয়ংসম্পূর্ন। আগে থেকেই যথাযথ প্রস্তুতি ছিলো বলে ফুটবল বিশ্বকাপ এবং ঈদকে ঘিরে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে ওয়ালটনের টিভি।

ওয়ালটন টেলিভিশন বিভাগের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা প্রকৌশলী মোস্তফা নাহিদ হোসেন জানান, গত রমজানের শুরুতেই মডেল ভেদে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত টিভির দাম কমানো হয়েছিল। ফলে, জুন মাসের শুরু থেকেই টেলিভিশনের বিক্রি ব্যাপক বেড়েছে। বিশেষ করে, রোজার শেষ মুহুর্তে ও ফুটবল বিশ্বকাপের প্রাক্কালে দেদারসে বিক্রি হয়েছে ওয়ালটন টিভি। বর্ধিত চাহিদার যোগান দিতে কারখানায় বাড়ানো হয়েছে উৎপাদন। ফলে উৎপাদন ব্যয় কমে যাওয়ায় ঈদের পরপরই টিভির দাম আরেক দফা কমানো হয়েছে।

ওয়ালটনের ডেপুটি ডিরেক্টর ও টেলিভিশন সেলস বিভাগের প্রধান মারুফ হাসান জানান, বড় পর্দার ওয়ালটনের ৪৯ ও ৫৫ ইঞ্চি টিভির দাম কমে দাঁড়িয়েছে ৫৪ হাজার ৯’শ ও ৬৪ হাজার ৯’শ টাকায়। ৩২ ইঞ্চি টিভির দাম ১ হাজার ১৯০ টাকা কমিয়ে এখন করা হয়েছে ১৮ হাজার ৮’শ টাকা। ওয়ালটনের ৩৯ ইঞ্চি টিভির দাম আগের চেয়ে এক হাজার কমে ৩২ হাজার ৯৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ২৮ ইঞ্চি টিভির দাম কমেছে ২ হাজার ৩’শ টাকা। বর্তমান দাম ১৬ হাজার ৯’শ টাকা। এছাড়া ৪৩ ইঞ্চি এলইডি টিভির দাম ৩৯ হাজার ৯’শ টাকা থেকে কমিয়ে ৩৭ হাজার ৯৯০ টাকা করা হয়েছে।

মারুফ হাসান আরো জানান, বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষ্যে স্থানীয় বাজারে স্মার্ট টিভি গ্রাহকদের জন্য বিশেষ চমক নিয়ে এসেছে ওয়ালটন। স্মার্ট টিভির লেটেস্ট অপারেটিং সিস্টেম ‘এন্ড্রয়েড ৭’যুক্ত ৩২, ৩৯ ও ৪৩ ইঞ্চি স্মার্ট টিভি যথাক্রমে ২৫ হাজার ৯৯০ টাকা, ৩৯ হাজার ৯’শ টাকা ও ৪৪ হাজার ৯’শ টাকায় দিচ্ছে ওয়ালটন। ই-শেয়ার অ্যাপ ব্যবহার করে গ্রাহক স্মার্টফোনেই পরিচালনা করতে পারবেন ওয়ালটনের এসব টিভি। মোবাইল থেকে টিভিতে ইমেজ, ভিডিও ও গেমস মিররিং করার সুবিধা রয়েছে। কঠোর মান নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে বাজারে ছাড়া হচ্ছে ওয়ালটনের প্রতিটি টিভি।
জানা গেছে, দেশে তৈরি ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ খ্যাত ওয়ালটন টিভি এশিয়া, মধ্য-প্রাচ্য, আফ্রিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশেও রপ্তানি হচ্ছে। গুনগত উচ্চমান এবং দামে সাশ্রয়ী হওয়ায় প্রতিনিয়ত সম্প্রসারিত হচ্ছে রপ্তানি বাজার।

Write a comment

Print Friendly, PDF & Email

এই বিভাগের আরও খবর


আর্কাইভ



error: Content is protected !!