ঢাকা মঙ্গলবার, নভেম্বর ২১, ২০১৭


আশুলিয়ায় নারী পোশাক শ্রমিক ধর্ষণ, ধর্ষক কর্মকর্তা গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধি : আশুলিয়ায় একাধিক পোশাক শ্রমিককে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত কর্মকর্তা হারুন অর রশিদকে তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার ভোরে নোয়াখালি জেলার নিজ গ্রাম থেকে আশুলিয়া থানা পুলিশের একটি দল তাকে গ্রেফতার করে। পরে দুপুর সাড়ে ১২ টায় তাকে আশুলিয়া থানা আনা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত হারুন-উর-রশিদ আশুলিয়ার উন্বেষা পোশাক কারখানার উৎপাদন ব্যবস্থাপক হিসেবে কর্মরত ছিল। নোয়াখিালি জেলার কবিরহাট থানার মালিপাড়া গ্রামের মুকবুল হোসেনের ছেলে।

এর আগেও সে কয়েকটি কারখানা থেকে নারী শ্রমিককে শারিরিক নির্যাতনের অভিযোগে চাকুরিচ্যুত হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার এসআই ও মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান জানান, গত ৩ আগষ্ট অন্বেষা কারখানার নারী পোশাক শ্রমিক ধর্ষণের অভিযোগে কর্মকর্তা হারুনের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। তার পরিপ্রেক্ষিতে পালাতক হারুনকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে একাধিক নারী পোশাক শ্রমিককে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর আগে বিভিন্ন কারখানায় এ ধরণের অপকর্মে জন্য চাকরিচ্যুত করা হয়েছিলো। কিন্তু কেউ অভিযোগ না করা করায় পার পেয়ে গেছে।

উল্লেখ্য, এ মাসের শুরুতে অন্বেষা কারখানায় উৎপাদন ব্যবস্থাপক হারুন অর রশিদের বিরুদ্ধে নারী পোশাক শ্রমিকদের নিজ অফিসে ডেকে নিয়ে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় সাতটি শ্রমিক সংগঠন একত্র হয়ে তাকে গ্রেফতারের জন্য মানববন্ধন করে । সেদিন পুলিশ মামলাটি গ্রহণ করে। তার পর থেকে সেই কর্মকর্তা কারখানা থেকে পালিয়ে গিয়ে আত্মগোপনে চলে যায়।

অন্যদিকে, আশুলিয়ার আউকপাড়ায় বাউল শিল্পী ধর্ষনের ঘটনায় গ্রেপ্তার রাজ্জাক ও আতাউরকে ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

Write a comment

এই বিভাগের আরও খবর

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn0Email this to someonePrint this page

Like us on Facebook