ঢাকা বুধবার, আগস্ট ৫, ২০২০



শ্রমিক অসন্তোষ সৃষ্টিকারী কারখানাগুলো শাস্তির আওতায় আনার দাবি

ডেস্ক রিপোর্ট: যেসব কারখানা ষড়যন্ত্রমূলক কাজ করে শ্রমিক অসন্তোষ সৃষ্টি করতে শুরু করেছে তাদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছে শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ স্কপ।

রোববার (১৯ এপ্রিল) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ দাবি জানান সংগঠনের নেতারা।

তারা বলেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারঘোষিত সারাদেশে সাধারণ ছুটি চলছে। এটি একটি বৈশ্বিক পরিস্থিতি। সাধারণ ছুটি এবং কারখানা বন্ধের কারণে শ্রমিকদের বেতন পরিশোধের জন্য সরকার মাত্র ২ শতাংশ সুদে ৫ হাজার কোটি টাকা মালিকদের জন্য বরাদ্দ করেছে। তা সত্ত্বেও এক মাস যেতে না যেতেই শ্রম আইনের ১২ ও ১৬ ধারার অপপ্রয়োগ ঘটিয়ে লে-অফ ও শ্রমিক ছাঁটাই করছেন মালিকরা।

নেতারা বলেন, সাধারণ ছুটির সময়ে লে-অফ কোনোভাবেই প্রযোজ্য হতে পারে না। মালিকরাও তা জানেন। তা সত্ত্বেও হাজার হাজার শ্রমিক ছাঁটাই এবং কয়েকশ কারখানা লে-অফ করা হয়েছে এবং প্রতিদিন তা করা হচ্ছে। আগের মতো সরকারের কাছ থেকে আরও সুবিধা নেওয়ার কৌশল হিসেবে গার্মেন্টস মালিকরা এই অন্যায় কাজ করছে এবং এক অরাজক পরিস্থিতির পটভূমি তৈরি করছে।

তারা বলেন, সাধারণ ছুটির পর শ্রমিকরা বাড়ি থেকে এসে যদি দেখে তার চাকরি নেই তাহলে যে বিস্ফোরণমূলক পরিস্থিতি তৈরি হবে তা সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না উল্লেখ করে নেতারা অবিলম্বে এই বে-আইনি ও অন্যায় পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকার জন্য সংশ্লিষ্ট মহলের প্রতি অনুরোধ জানান। এরইমধ্যে যেসব কারখানা এই ষড়যন্ত্রমূলক কাজ করে শ্রমিক অসন্তোষ সৃষ্টি করতে শুরু করেছে তাদেরকে কঠোর শাস্তির আওতায় আনার জন্য নেতারা সরকারের কাছে জোর দাবি জানান।

Comments


আর্কাইভ