ঢাকা বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০১৯



‘বাপস’ এর বার্ষিক দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিনিধি: পোশাক শিল্প পেশাজীবিদের শীর্ষ সংগঠন ‘ বাংলাদেশ অ্যাপারেলস প্রফেশনালস সোসাইটি (বাপস) এর বার্ষিক দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ (১০ মে ২০১৯) রাজধানীর মহাখালী ডিওএইচএস এলাকায় অবস্থিত রাওয়া কনভেনশন সেন্টারের ঈগল হলরুমে এ দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনটির যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক খন্দকার জামান হোসাইনের সঞ্চালনায় উক্ত ইফতার মাহফিলে বাপসের সভাপতি মেজর (অবসরপাপ্ত) মিজানুর রহমান খান, সহ সভাপতি মাহবুবুর রহমান, জয়া নন্দী, সাধারণ সম্পাদক গাজী সালাউদ্দিন হিমেল, সহকারী সম্পাদক জুয়েল বৈদ্য ও জেসমিন নাহার মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন ও মাহমুদ বিন সামাদসহ ইসি কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, আমেরিকাভিত্তিক অডিট ও সার্টিফিকেশন সার্ভিস প্রোভাইডিং কোম্পানী ‘ সাসটেইনেবল ম্যানেজমেন্টে সিস্টেম ইনক’ এর কর্ণধার আব্দুল আলিম, ইটেক্স সলুশনস লিমিটেড এর কর্ণধার রাসেল পারভেজ, সেডেক্স ডিরেক্টর এহতেশাম কবীর, বিশিষ্ট লেখক ও এইচআর স্পেশালিস্ট ওয়ালিদুর রহমান বিদ্যুৎ, ওয়াধআনি (Wadhwani) ফাউন্ডেশন এর প্রোগ্রাম ম্যানেজার এস্তানুল কবীর, পলমল গ্রুপের জিএম লুৎফর রহমান (রিপন), আরএমজি বিডি নিউজের সম্পাদক কবীর আহমেদ লিনজু ও বিশিষ্ট শ্রম আইন বিশেষজ্ঞ ও প্রশিক্ষক এডভোকেট তমাল আহমেদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে বাপসের সকল নেতৃবৃন্দের পরিচয় পর্ব শেষে বাপসের বিগত বছরের সফলতার গল্প ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে উপস্থাপনা করেন সংগঠনের সভাপতি মেজর (অবসরপাপ্ত) মিজানুর রহমান খান। তিনি বলেন, ২০১৪ সালে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’কে প্রোমোট করার ও ক্যাপাসিটি বিল্ডিং এর লক্ষ্য নিয়ে পোশাক শিল্প ও পাদুকা শিল্পের পেশাজীবিদের নিয়ে এই সংগঠনটির যাত্রা শুরু হয়। যা পরবর্তীতে ২০১৫ সালের বাংলাদেশ সরকারের রেজিস্ট্রেশন প্রাপ্ত হয়।

তিনি বলেন, বাপস গত পাঁচ বছরে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছে। সফলতার অংশ হিসেবে বাপস ইতিমধ্যে অ্যাকশন এইড, এসএনভি ও বিলস সহ বেশ কয়েকটি ইন্টারন্যাশনাল সংগঠন ও প্রজেক্টের সাথে কাজ করেছে। মিড লেভেল ম্যানেজমেন্টের উন্নয়নকল্পে বাপস নিয়মিত বিভিন্ন ট্রেনিং প্রোগ্রাম আয়োজন করেছে। এসব প্রোগ্রামে বাপসের সকল সদস্যের অক্লান্ত পরিশ্রম ও ভালোবাসা আমাদের এগিয়ে যাবার প্রেরণা দিয়েছে। আমরা প্রত্যাশা করি, বাপস আগামী দিনগুলোতেও সফলতা ও সম্মানের সাথে শীর্ষস্থানে অবস্থান করবে।

এসময় অতিথির বক্তব্যে আব্দুল আলিম বলেন, নিঃসন্দেহে বাপস দেশের পোশাক শিল্প পেশাজীবিদের সংগঠনগুলোর মধ্যে পথিকৃত। বাপসের সকল উদ্যোগ ও কর্মপ্রয়াস আমাদের মুগ্ধ করে।

তিনি বলেন, দেশে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম নির্ভর অনেকগুলো এইচআর কমপ্লায়েন্স পেশাজীবিরা মিলিত হয়ে ছোট ছোট সংগঠন গড়ে তুলেছে। এসব ছোট ছোট সংগঠনগুলোকে একত্রিত করে একই ছাতার নিচে এক সংগঠনের আওতায় আনার জন্য বাপসের সকল নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি, বাপস দেশের শীর্ষস্থানীয় সংগঠন হিসেবে এই গুরুদায়িত্ব নিয়ে সকল পেশাজীবিদের জন্য একটি প্লাটফর্ম নিশ্চিত করবে।


আর্কাইভ