ঢাকা বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০১৯



আজ উত্তরার বিজিএমইএ নতুন ভবনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

ডেস্ক রিপোর্ট: হাতিরঝিল প্রকল্পের সৌন্দর্য রক্ষায় উত্তরার নতুন ভবনে সরে যাচ্ছে পোশাক খাত মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বুধবার উত্তরায় নবনির্মিত বিজিএমইএ কমপ্লেক্স ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করবেন।

উত্তরায় ১১০ কাঠা জমির ওপর ১৩ তলা (পার্কিংয়ের জন্য ভূগর্ভস্থ দুই তলা ছাড়া) বিজিএমইএ কমপ্লেক্সের ৫ তলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। জমির স্বত্ব না থাকা ও জলাধার আইন লঙ্ঘন করায় হাতিরঝিল প্রকল্প এলাকায় বিজিএমইএর বর্তমান ভবনটি ভেঙ্গে ফেলতে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা রয়েছে। কয়েক দফা সময় দেবার পর সর্বশেষ আদেশ অনুযায়ী আগামী ১২ এপ্রিলের মধ্যে ভবনটি ছাড়তে হবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে এ তথ্য।

এদিকে, পোশাকখাতের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএ ভবন আদালতের নির্দেশে সরে যাওয়ায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ইতিবাচক ভাবমূর্তি তৈরি হবে বলে মনে করছেন পোশাকখাতের মালিকরা। ইতোমধ্যে বিদেশী ক্রেতারাও ভবনটি দ্রুত সরিয়ে নেয়ায় এ শিল্পের উদ্যোক্তাদের সাধুবাদ জানিয়েছেন। এছাড়া ভবনটি সরে যাওয়ায় হাতিরঝিল প্রকল্পের মূল সৌন্দর্য ফিরিয়ে আনা যাবে বলে মনে করছেন পরিবেশবাদীরা। ঢাকার সাধারণ মানুষও ভবনটি সরিয়ে নেয়ার স্বস্তি প্রকাশ করেছেন।

এ প্রসঙ্গে বিজিএমইএর সভাপতি মোঃ সিদ্দিকুর রহমান বলেন, নির্দিষ্ট সময়ের কয়েকদিন আগেই হাতিরঝিল থেকে বিজিএমইএ’র অফিস উত্তরার নতুন ভবনে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন ভবন উদ্বোধন করবেন।

তিনি আরও জানান, এরই মধ্যে অফিসের মালামাল সরিয়ে নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে। আগামী ১৫ এপ্রিল থেকে নতুন ভবনে সবাই অফিস করবেন। বিজিএমইএর সকল সদস্য প্রতিষ্ঠানকে কাঁচামাল আমদানির প্রাপ্যতা সনদ (ইউডি) উত্তরার নতুন ভবন থেকে নিতে হবে।

জানা গেছে, উত্তরায় বিজিএমইএর নতুন ভবনে দুটি টাওয়ার হবে। সেখানে মোট জায়গার (স্পেস) পরিমাণ ৪ লাখ ৬৪ হাজার বর্গফুট। তার মধ্যে ৩ লাখ বর্গফুট নিজেদের ব্যবহারের জন্য রাখছে বিজিএমইএ। বাকি জায়গা ২৩টি প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করে দেয়া হয়েছে। তবে এখনও ৫০ হাজার বর্গফুট জায়গা বিক্রির জন্য রয়েছে। ভবনটিতে প্রদর্শনী কেন্দ্র, ৭৫০ জন মানুষ ধারণক্ষমতার আধুনিক মিলনায়তন, দুটি সেমিনার কক্ষ এবং সংগঠনের সদস্যদের জন্য সুইমিংপুলসহ বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই ভবনের কার্যক্রম সরিয়ে নিতে উত্তরা তৃতীয় পর্বে ১১০ কাঠা জমি রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) কাছ থেকে অর্ধেক মূল্যে কিনে নেয় বিজিএমইএ।


আর্কাইভ