ঢাকা মঙ্গলবার, জুন ২৫, ২০১৯



‘সোজা আঙুলে ঘি উঠবে না, আঙুল বাঁকা করতে হবে’

ডেস্ক রিপোর্ট: সোজা আঙুলে ঘি উঠবে না, আঙুল বাঁকা করতে হবে; প্রয়োজেনে আন্দোলন ও সংগ্রাম করে প্রাপ্য অধিকার আদায় করতে হবে। শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র আয়োজীত এক শ্রমিক সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন।এসময় তৈরি পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের জন্য ঘোষিত নতুন মজুরি কাঠামো পুনর্বিবেচনা করে ন্যূনতম মজুরি ১৬ হাজার টাকা করার দাবি জানান তারা।

সংগঠনটির নেতারা  বলেন, নতুন মজুরি কাঠামো দিয়ে ‘বাহবা নেওয়ার চেষ্টা’ করলেও প্রকৃতপক্ষে ‘শ্রমিকদের চোখে ধুলা’ দেয়া হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের শ্রমিক নেতা দুলাল সাহা সমাবেশে বলেন, “একই বাজারে রাষ্ট্রায়ত্ত খাতের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ১৫ হাজার ৪৫০ টাকা। আর পোশাক খাতের শ্রমিকদের জন্য ঘোষিত নতুন মজুরি আট হাজার টাকা! এটা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।”

সিপিবির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম সমাবেশে বলেন,  “সোজা আঙুলে ঘি উঠবে না, আঙুল বাঁকা করতে হবে। লড়াই-সংগ্রাম করে দাবি আদায় করতে হবে।”

তিনি বলেন, “দুই বছর আগে ১৬ হাজার টাকা ন্যূনতম মজুরি দাবি করা হয়েছিল। এখন নিত্য পণ্যের দাম বেড়ে এই দাবি  ২১ হাজার টাকা হওয়ার কথা। তারপরও আমাদের এখন দাবি পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ১৬ হাজার টাকা আর মূল বেতন ১০ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হোক।”

মজুরি পুনর্বিবেচনার এই দাবিতে আগামী ৫ অক্টোবর বিকাল ৩টায় প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেন গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের নেতারা। অন্যদের মধ্যে সিপিবি নেতা মনজুরুল আহসান খান, গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক জলি তালুকদার সমাবেশে বক্তব্য দেন।


আর্কাইভ