আজ সোমবার, ৬ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, এখন বিকাল ৪:১৫

কাল থেকে খুলছে আশুলিয়ার সব বন্ধ পোশাক কারখানা’

নিজস্ব প্রতিনিধি : আশুলিয়ায় শ্রমিক অসন্তোষের কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়া সব পোশাক কারখানা সোমবার খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ।

এর আগে বন্ধ হওয়া কারখানার মালিকদের সঙ্গে রবিবার দুপুরে জরুরি বৈঠক করেন বিজিএমইএ সভাপতি ও পরিচালকরা। সভায় বন্ধ থাকা সব কারখানা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয় বলে জানা যায়।

শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি বাড়ানো, শ্রমিক ছাঁটাই বন্ধ, কোনো কারণে ছাঁটাই হলে আইন অনুযায়ী প্রাপ্য পরিশোধ এবং ছুটিকালীন বেতন বহাল রাখার দাবিতে তৈরি পোশাক শ্রমিকদের আন্দোলনের মুখে গত ২০ ডিসেম্বর ৫৯টি কারখানা বন্ধ করে পোশাক মালিকরা।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, আগামীকাল সোমবার সকাল থেকে সাভারের আশুলিয়ার বন্ধ পোশাক কারখানা খুলে দিতে কারখানা মালিকদের অনুরোধ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ ও শ্রমিকদের অনুরোধে তথা সার্বিক অর্থনীতির দিক বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কারখানা মালিকদের উদ্দেশে সিদ্দিকুর রহমান বলেন, সাভারের আশুলিয়ার যে ৫৯টি কারখানা শ্রম আইনের ১৩(১) ধারায় বন্ধ রয়েছে, সেই ধারা প্রত্যাহার করে কারখানা খুলে দিন।

বিজিএমইএর সভাপতি বলেন, কিছু উস্কানিদাতা নিরীহ শ্রমিকদের প্ররোচণা দিয়ে কারখানায় অশান্ত পরিবেশ সৃষ্টি করছে। এর ফলে গত ১১ ডিসেম্বর থেকে ৫৯টি কারখানার শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করে আসছে। এতে এ শিল্পের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে ক্রেতাদের কাছে।

শ্রমিকদের উদ্দেশে বিজিএমই্এ সভাপতি বলেন, আগামীকাল সকাল থেকে স্ব স্ব কারখানায় কাজে যোগ দিন; উৎপাদন সচল রাখুন। অনুগ্রহ করে অন্যের প্ররোচণায় এই শিল্পের ক্ষতি করবেন না। কারণ এ শিল্পের ক্ষতি করা মানে দেশের সার্বিক অর্থনীতির ক্ষতি করা।

বর্তমানে তৈরি পোশাক শিল্পের অবস্থা ভালো নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, গ্যাস-বিদ্যুৎ সংকট, পোশাকের মূল্য হ্রাস, উৎপাদন ব্যয় বৃদ্ধির কারণে দীর্ঘ সময় ধরে ক্রান্তিকাল পার করছে তৈরি পোশাক খাত। তাই এ শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ সহ-সভাপতি মোহাম্মদ নাসিরসহ সংগঠনটির অন্যান্য পরিচালকরা।

Comments

এই বিভাগের আরও খবর

Find us on Facebook